সংঘ মণীষা সংঘবন্ধু অজিতানন্দ মহাস্থবির পরলোকগমন  

0

চট্টগ্রাম অফিস : বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতি, রাংগুনিয়া প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির প্রাক্তন সভাপতি, ধর্মরত্ন অনাথালয়ের প্রতিষ্ঠাতা,মানবতাবাদী ব্যক্তিত্ব, সংঘের স্বাধিকার আন্দোলনের অন্যতম মূর্ত প্রতীক,আবাল্য ব্রক্ষচারী, ইছাখালী অশোকারাম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ সংঘবন্ধু ভদন্ত অজিতানন্দ মহাস্থিবর চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ( আইসিইউতে) চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ৩০ আগস্ট ২০১৮ খৃস্টাব্দ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা ৩০ মিনিটের সময় পরলোকগমন করেন । তিনি বিগত ৩ জুলাই ২০১৮ খৃষ্টাব্দ থেকে রাজা চুলালংকর্ন মেমোরিয়াল হাসপাতাল, ব্যাংকক, থাইল্যান্ডে চিকিৎসা গ্রহণ করে ২০ আগষ্ট ২০১৮ খৃষ্টাব্দে থাই বিমান যোগে ঢাকা হয়ে চট্রগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।শারিরীক অবস্তার সংকটাপন্ন হলে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হস্থান্তর করা হয়। তিনি দীর্ঘদিন যাবত যক্ষ্মা, শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা, অক্সিজেনের অভাব, হৃদরোগ, লিভার ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগে ভোগেছিলেন। সংঘ বন্ধু অজিতানন্দ মহাস্থবির

মৃত্যু সন্নিকট জেনে দেশ , জাতি ও ভিক্ষুসংঘের সান্নিধ্যে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগের জন্য বাংলাদেশে চলে আসেন , এইটা ছিল তার শেষ ইচ্ছা। তার মৃত্যুতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের চেয়ারম্যান ড.জিনবোধি ভিক্ষু, বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সহা সচিব এস লোকজিৎ থেরো, সহ সম্পাদক শাসনপ্রিয় থেরো, অর্থ সম্পাদক জিনরতন থেরো, ধর্মীয় সম্পাদক সুমঙ্গল মহাস্থবির, প্রচার ও প্রকাশনার সম্পাদক সুমনোপ্রিয় থেরো, আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ উন্নয়ন সংস্থার চেয়ারম্যান জে.বি.এস আনন্দবোধি ভিক্ষু,সম্পাদক সত্যজিৎ বড়ুয়া, চট্টগ্রাম কলেজের পালি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. অর্থদশী বড়ুয়া,ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের সভাপতি প্রকৌশলী পুলক কান্তি বড়ুয়া,সম্পাসক স.ম.জিয়াউর রহমান, বাংলাদেশ সমাজ সংষ্কার আনোলনের সভাপতি বোধিপাল বড়ুয়া গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। বিবৃতিতে তারা বলেন, সংঘ বন্ধু

অত্যন্ত স্বাধীন দৃঢ়চেতা সমাজ শাসন দরদী ব্যাক্তিত্ব ছিলেন। তিনি সব সময় ভিক্ষুসংঘকে রক্ষা করার চেষ্টা করতেন। তার সাংঘিক প্রশাসনিক ও সাংগঠনিক চিন্তাচেতনা ছিল অসাধারণ । আজীবন সংঘের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করেছেন প্রয়াত অজিতানন্দ মহাস্থবির। সূর্যের ন্যায় তেজদীপ্ত সংঘ পুরুষকে আমরা আজ চিরতরে হারিয়েছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here