শনিবার , ফেব্রুয়ারি ২২ ২০২০
Breaking News
Home / বিভাগীয় সংবাদ / চট্টগ্রাম বিভাগ / চবিতে চান্স পেয়েও ভর্তি হতে সুযোগ দিবে না শুনে দুইদিন ধরে উর্ত্তীনদের মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী

চবিতে চান্স পেয়েও ভর্তি হতে সুযোগ দিবে না শুনে দুইদিন ধরে উর্ত্তীনদের মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী

মহিউদ্দিন ওসমানী, চবিতে চান্স পেয়েও ভর্তি হতে সুযোগ দিবে না শুনে দুইদিন ধরে উর্ত্তীনদের মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক ১ম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় চান্স পেয়েও ভর্তি হতে না পারায় ২ দিন ধরে মানববন্ধন ও অবস্থান করেছে বিভিন্ন ইউনিটে মান-উন্নয়নের মাধ্যমে চান্সপ্রাপ্ত ভর্তিচ্ছুদের একাংশ।

রবিও সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে চবির শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে দিনভর এ কর্মসূচি পালন করে তারা।

এসময় ভর্তিচ্ছুরা বলেন, ‘সার্কুলারে বলা ছিল, ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির জন্য যারা ২০১৮ সালের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার ফলাফলে আবেদনের যোগ্য ছিল না। তবে ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় (মান উন্নয়ন) অংশগ্রহণ করে যোগ্যতা অর্জন করেছে তারা আবেদনের যোগ্য বিবেচিত হবে। কিন্তু সার্কুলারে এমন কোন বিষয় স্পষ্টভাবে উল্লেখ ছিল না যে,

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের যোগ্য প্রার্থীরা মান-উন্নয়নের মাধ্যমে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে আর আবেদনের সুযোগ পাবে না।

এসময় তারা ভর্তি পরীক্ষায় চান্সপ্রাপ্ত গতবারে ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার যোগ্যতাসম্পন্ন মান-উন্নয়নকৃত পরীক্ষার্থীদের ভর্তির সুযোগ দেওয়ার জন্য আবেদন’বিষয়ে একটি আবেদনপত্র প্রক্টরের মাধ্যমে উপাচার্য বরাবর প্রেরণ করেন। দাবি মেনে নেওয়া না হলে আমরণ অনশনের ঘোষণাও দেন শিক্ষার্থীরা।

চবির ‘এ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় চান্সপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী আবু তৈয়ব তোহা বলেন, এখানে ভর্তি পরীক্ষা কমিটি ও আইসিটি সেলের মধ্যে সমন্বয়ের যে অভাব দেখা যাচ্ছে তার ভুক্তভোগী আমরা কেন হব? আমরা যদি ভর্তির অযোগ্যই হবো তাহলে আমাদের ভর্তি পরীক্ষার এডমিট কার্ড প্রদান, ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ এবং মেধাতালিকা দেওয়া এতগুলো ধাপ অতিক্রম কেন

করালো?’

আরেক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী বলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধা তালিকায় আসার পর পূর্ববর্তী ভর্তি বাতিল সহ পরবর্তী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করিনি আমি। তাহলে এখন কী হবে আমার?

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর প্রণব মিত্র চৌধুরী বলেন, ‘উপাচার্য মহোদয় এ বিষয়ে মিটিংয়ে আছেন। শিগগির সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’

উল্লেখ্য, গত ৩ সেপ্টম্বর প্রকাশিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে অনুযায়ী আবেদন করে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও বিশ্ববিদ্যালয় তাদের অযোগ্য হিসেবে বিবেচিত করায় ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না এই শিক্ষার্থীরা। যদিও তাদের আবেদন গ্রহণ করে প্রবেশপত্র প্রদান ,ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ এমনকি ফলও প্রদান করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ।
সূত্রঃ প্রতিদিনের সংবাদ চবি প্রতিনিধি

About Mohammad Firoz

Check Also

কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত হলেন ১৯ জন

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের একেবারে তৃণমূলের রাজনীতি করে কাউন্সিলর মনোনয়ন দৌড়ে স্থান করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্রেকিং নিউজ
মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের উদ্যোগে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ সর্বস্তরে বাংলা ভাষাকে ব্যবহার উপযোগী করতে হবে- বিভাগীয় কমিশনার ইসলাম সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য স্লােভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রীর ‘ইসলামের কোনো ঠাঁই নেই’ নাইজেরিয়া সামরিক অভিযানে নিহত ১২০ নাঈমের জোড়া আঘাতে স্বস্তি টাইগার শিবিরে ছোটপর্দার রাণী রাসমণি এবার বলিউডের ছবিতে অভিষেকের সাথে নির্বাচনে প্রার্থী হবার দাবীতে নেতার বাড়ি ঘেরাও যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতিতে চুক্তি চলন্ত ট্রেনে উঠতে গিয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) এক অধ্যাপকের মৃত্যু রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাস চত্বরে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন