রবিবার , ফেব্রুয়ারি ২৩ ২০২০
Breaking News
Home / বিভাগীয় সংবাদ / চট্টগ্রাম বিভাগ / রাজনীতিবিদ মুক্তিযোদ্ধা এস.এম. জহিরুল হকের শোকসভা অনুষ্ঠিত

রাজনীতিবিদ মুক্তিযোদ্ধা এস.এম. জহিরুল হকের শোকসভা অনুষ্ঠিত

চট্টগ্রাম অফিস: বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযোদ্ধা এস.এম জহিরুল হকের মৃত্যুতে জহিরুল হক শোকসভা কমিটির উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল আজ ১৯ জানুয়ারি ২০২০ শনিবার সন্ধ্যায় মোমিন রোডস্থ সুপ্রভাত স্টুডিও হলে অনুষ্ঠিত হয়।

শোকসভা কমিটির আহ্ববায়ক এবং ‘সাপ্তাহিক আলোকিত সন্দ্বীপ’ পত্রিকার সম্পাদক অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীণ সাংবাদিক নেতা মইনুদ্দীন কাদেরী শওকত।

হাজী খায়ের আহমদ স্মৃতি সংসদের সভাপতি মো: কামাল হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন স্বাধীন সংবাদপত্র পাঠক সমিতি বাংলাদেশের সভাপতি সাংবাদিক এস.এম. জামাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ফোরাম আহ্বায়ক শিব্বির আহমদ ওসমান, প্রাবন্ধিক মাহমুদুল হক আনসারী, বাংলাদেশ পরিবেশ উন্নয়ন সোসাইটির চেয়ারম্যান এ.কে.এম আবু ইউসুফ, প্রাবন্ধিক ডা. জামাল উদ্দিন, দৈনিক ইনফো বাংলার সহ-সম্পাদক ডা. মাহবুবুল আলম, দৈনিক গিরিদর্পণ প্রতিনিধি সি.আর. বিধান বড়ুয়া, সাবেক ছাত্রনেতা জসিম উদ্দিন চৌধুরী, দৈনিক প্রাণের বাংলাদেশের মিরসরাই প্রতিনিধি এস.এম. জাকারিয়া, দৈনিক সকালের সময় প্রতিনিধি আল আমিন, সাংবাদিক শিপক কুমার নন্দী, আবদুল্লাহ মামুন, এম.এ. মান্নান, নুর হোসেন প্রমুখ।

পরিবারের পক্ষে থেকে বক্তব্য রাখেন মরহুমের পুত্র এস.এম. এনামুল হক তারেক।

শোকসভা শেষে মরহুম জহিরুল হকের রুহের মাহফেরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা কে.এম নূহ হোসাইন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবীণ সাংবাদিক নেতা মইনুদ্দীন কাদেরী শওকত বলেন, মরহুম এস.এম. জহিরুল হক আপাদমস্তক একজন দেশপ্রেমিক রাজনীতিক ছিলেন। তিনি সাম্রাজ্যবাদ, আধিপত্যবাদ, বর্ণবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে চলতেন। তবে তিনি ধার্মিক, সদালাপি ও বন্ধুবৎসল ছিলেন। তাঁর সদাচারণ ও সকলের প্রতি মৈত্রী’র বন্ধন সৃষ্টি করে চলার আগ্রহ মানুষকে উজ্জীবিত করতো। রাষ্ট্রীয় অখন্ডতা, সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতা বিরোধী কোনো অপতৎপরতাকে তিনি তাঁর অবস্থান থেকে প্রতিহত করার চেষ্টা করতেন সংঘবদ্ধ প্রচেষ্টায়।

সভাপতির বক্তব্য অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান বলেন, এস.এম. জহিরুল হক সজ্জন, নির্লোভ, পরহিতব্রতী ছিলেন। সকলকে তিনি আপন করে এগিয়ে চলার চেষ্টা করতেন। সংবাদপত্রসেবী এবং কৃষক- শ্রমিক-মেহনতী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় অন্যতম অগ্রসৈনিক ছিলেন। জহিরুল হকের মত মানের মানুষ বর্তমানে বিরল বিধায় সমাজে অসূয়া, বিদ্বেষ, ক্লেদার্থ পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এখন পারস্পরিক সহমর্মিতা, পরমত সহিষ্ণুতা ও মানবিক আবেদন বাধাগ্রস্ত।

উল্লেখৌ, মরহুম এস.এম. জহিরুল হক কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বাহেরগড়া মেষতলী বাজার সংলগ্ন ফকির বাড়িতে ১৯৪৭ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন এবং গত ৮ জানুয়ারি ২০২০ চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।

About Mohammad Firoz

Check Also

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের উদ্যোগে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের উদ্যোগে শহীদ মিনারে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্রেকিং নিউজ