জাতীয় ইস্যুতে অনন্য উচ্চতায় ছাত্রলীগ

0

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস রোধে এবং করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কল্পে দেশের মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ছাত্রলীগ মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও লিফলেট বিতরণ করছে। সেই সাথে বিভিন্ন জায়গায় ছাত্রলীগ হাত ধোয়ার ব্যবস্থাও রেখেছে, সেই সাথে দিন মজুরীও অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়ে কাজ করে যাচ্ছে এ সংগঠনটি।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের অনেক অভিযোগ থাকার পরও তারা পিছিয়ে নেই সামাজিক, মানবিক, রাজনৈতিক, অথনৈতিকসহ বিভিন্ন কাযর্ক্রমে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ক্লান্তি মুর্হূতে এই দেশের হাত ধরেছিলো। সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের কারণ প্রতিটা মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে আজও ঠিক জাতির এই ক্লান্তিকর দুঃসুময়ে ছাত্রলীগ দেশের মানুষের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করছে।

ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ সারাদেশে এ সচেতনতামূলক কার্যক্রম চলছে ।

মহামারী করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখতে ছাত্রলীগের উদ্যোগে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন ধরণের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এ কার্যক্রম অংশগ্রহণ করে কাজ করে যাচ্ছে।

এ সময় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, আপনারা জানেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাতীয় ইস্যুতে সব সময় দেশের জন্য কাজ করে গেছে। আজও জাতির এই দুর্দিনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মাঠে আছে এবং থাকবে। তিনি বলেন, আমাদের জনবহুল দেশে করোনা সংক্রমণ রোধে সবচেয়ে বেশি জরুরি জনসচেতনতা। একারণে আমরা জনসচেতনতামূলক নানা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছি।

জয় আরো বলেন, এছাড়া অসাধু ব্যবসায়ীরা অনেকেই স্যানিটাইজার পণ্যের মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছেন। বাজারেও এসব প্রস্তুতিমূলক পণ্য পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে শ্রমজীবী ও খেটে খাওয়া মানুষেরা এসব কিনতে পারছে না। ছাত্রলীগ তাদের হাতে স্যানিটাইজার পণ্য পৌঁছাতে কাজ শুরু থেকেকাজ করে যাচ্ছে। জয় বলেন, জাতীয় ইস্যুতে অনন্য উচ্চতায় ছাত্রলীগ সব সময় আছে এবং থাকবে।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেছেন, বিশ্বে করোনা ভাইরাসের বিস্তার এবং এর প্রভাবে বাংলাদেশও এখন স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছে। এ অবস্থায় বাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের স্বল্পতা এবং মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় ছাত্রলীগ শ্রমজীবী ও খেটে খাওয়া মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছে।

লেখক আরো বলেন, ছাত্রলীগের নেয়া এ উদ্যোগ সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সচেতনামূলক কর্মসূচির অংশ হিসেবে ছাত্রলীগ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে ৩ হাজার মাস্ক, ছাত্রলীগের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় তৈরিকৃত ৩ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং সচেতনতামূলক লিফলেট বিলিসহ বিভিন্ন কাযর্ক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত. শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সর্বসাধারণের মাঝে বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতারা। এসময় তারা দেশে বৃহৎ ছাত্র সংগঠনগুলোকেও করোনা প্রতিরোধে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here