বাংলাদেশ থেকে ছেড়ে আসা দক্ষিন কোরিয়ার তৃতীয় বিশেষ চাটার্ড ফ্লাইটে আবারও নতুন করে ৫ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত

5

এম আআব্দুল্লাহ মাহবুব, দক্ষিণ কুরিয়া প্রতিনিধি : ২৬শে মে এশিয়ান এয়ারলাইন্স এর বিশেষ চাটার্ড ফ্লাইটে কোরিয়ানসহ বাংলাদেশী ৮৩ জন কোরিয়ায় ফিরেন।

বাংলাদেশি ৮৩ জনের বিভিন্ন ভাবে পরীক্ষা নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে এয়ারপোর্ট কতৃপক্ষ ১৮ জনকে সন্দেহের তালিকা রাখে। ঐ ১৮ জনের মধ্যে ৫ জনের করোনা ভাইরাসের পজিটিভ রেজাল্ট এসেছে । এদের সবাই ইপিএস কর্মী বলে জানা গেছে। এরা দেশে গিয়ে অনেক দিন আটকে ছিলেন বিভিন্ন জটিলতার কারণে ।

কোরিয়ার ইমিগ্রেশন অতিক্রম করার আগে বিভিন্ন স্বাস্থ্য বিধি শর্তসাপেক্ষের ফর্ম পূর্ণ করানো হয় ।তারপর সরাসরি বাংলাদেশীদের সবাইকে দক্ষিণ কোরিয়ার স্বাস্থ্য বিধি মেনে, যার যার আবাস্হলের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী হোম কোয়ারেন্টেইন ১৪ দিন থাকতে বলে বলা হয়েছে। আর যে ৫ জন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের সবাইকে হাসপাতালে চিকিত্সাধীন বিশেষ নজরদারিতে রেখে চিকিত্সা দেওয়া হচ্ছে। আর বাকি বাংলাদেশী যারা হোম কোয়ারেন্টেইন আছেন তাদের সবাইকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কতৃক বিশেষ স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছেন বলে জানা যায়।

এখনও আরও বাংলাদেশী ইপিএস কর্মী দেশ থেকে আসতে পারছেন না, দক্ষিণ কোরিয়ার বেঁধে দেওয়া শর্তাবলির কারণে। আরও যারা বাংলাদেশী ইপিএস কর্মী দেশে আটকে আছেন তাদের সবাইকে আনার ব্যাপারে তত্পর আছেন, দূতাবাস কতৃপক্ষ। এই ব্যপারে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।

মহামান্য রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম নিজেও বাংলাদেশী ইপিএস কর্মীদের ফিরিয়ে আনার জন্য নিয়মিত যোগাযোগ করে যাচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here