ময়মনসিংহে এসিল্যান্ডের এ্যাকশনে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেলো দাপুনিয়ার ফুলি

447

আরিফ রববানীঃ ময়মনসিংহে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) এম সাজ্জাত হোসেন। ২রা জুন মঙ্গলবার তিনি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন সদর উপজেলার দাপুনিয়া ইউনিয়নের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ফুলির অভিভাবকরা তাকে অপ্রাপ্তবয়সে বিয়ে দিচ্ছেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ সদর উপজেলা নির্বাহী শেখ হাফিজুর রহমানের নির্দেশনা এসিল্যান্ড এম সাজ্জাদ হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযান চালিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন এবং ফুলির অভিভাবক কে সতর্ক করেন।

এসিল্যান্ড এম সাজ্জাদ হোসেন জানান-ফুলির (ছদ্মনাম) বয়স ১১। সে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। যার এখন পুতুল খেলার সময়, আর এই সময়ে তাকে এক অন্ধকারে ঠেলে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। আজ ময়মনসিংহ জেলার দাপুনিয়া ইউনিয়ন থেকে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমানের কাছে সংবাদ আসে একটি বাল্যবিবাহ আয়োজনের চেষ্টা হচ্ছে। সংবাদ পাওয়া মাত্রই ময়মনসিংহ জেলার সম্মানিত জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মিজানুর রহমান স্যারের নির্দেশে ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমান স্যারের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এসিল্যান্ড সদর এম সাজ্জাদুল হাসান এর নেতৃত্বে অভিযান ও মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। এসময় মেয়ের অভিভাবককে মোট ১০০০০/- টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। মোবাইল কোর্ট পরিচালনা বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here