সাপাহারে ভূমিদস্যুকে আটক করায় থানা জ্বালিয়ে দিবে বলে ওসিকে হুমকি: আটক-৩

5

সোহেল চৌধুরী রানা, সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহারে কোটি টাকা মূল্যের জমি নাম মাত্র মূল্যে ক্রয় করে অবৈধ দখল চেষ্টা ও প্রতিপক্ষের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করে একদল ভূমিদস্যু। এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে রিয়াজ উদ্দীন (৫০) ও তার ছেলে আসাদুল (২৫) কে আটক করে সাপাহার থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। এঘটনায় কতিথ তৈয়বাতুন মিনি (৪৮) নামে এক কুখ্যাত নারী ওসিকে মোবাইল ফোনে আটকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হলে থানায় আগুন দিয়ে থানা জ্বালিয়ে দিবে বলে হুমকি প্রদান করেন।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মীরাপাড়া গ্রামের মৃত মহসিন আলীর ছেলে মোকাদ্দেস আলী সহ তার ভ্রাতাগন মীরাপাড়া মৌজায় একটি জমি ক্রয়সূত্রে দীর্ঘ প্রায় ৪৩ বছর যাবৎ ভোগদখল করে আসছিলো। এরই মধ্যে উপজেলার আদলপুর গ্রামের মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে রিয়াজ (৪৬) নামে এক ব্যক্তি ২০১৯ সালে পূর্ব দাতার ওয়ারিশগনের নিকট হতে ৩.২৯ একর জমির মধ্যে .৪১ শতাংশ জমি ১২ লক্ষ টাকায় ক্রয় করেছে দাবী করে। যার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় কোটি টাকা হবে। জমি দখল পেতে ২ শতাংশ জমি দেওয়ার চুক্তিতে উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী তৈয়বাতুন মিনি (৪৮) সহ কয়েক জন ভূমিদস্যুকে ভাড়াকরে রিয়াজ। ভূমিদস্যুর পরামর্শে ১৮জুন সকাল থেকে লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে ওই জমি অবৈধ দখল চেষ্ট ও প্রতিপক্ষের লোকজনের উপর চড়াও হয়ে হামলা চালিয়ে মারপিট করে। এতে করে মোকাদ্দেস আলী সহ বেশ কয়েক জন গুরুত্বর আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কতিথ জমি দখলকারী রিয়াজ ও তার ছেলেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এ খবর পেয়ে কথিত মহিলা ভূমিদস্যু মিনি সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জকে সরকারী মোবাইল নম্বারে ফোন করে। এবং রিয়াজ ও তার ছেলেকে আদালতে চালান করা হলে আগুন দিয়ে থানা জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি প্রদান করে। পরে থানা পুলিশ হুমকি প্রদানকারী কুখ্যাত নারী মিনিকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই জানান, অবৈধভাবে ভূমি দখলদার ২জন ও হুমকি দাতাকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে চলমান মামলা দায়ের করে শুক্রবারে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here