দীর্ঘদিন ধরে বেতন অনিয়মিত গণস্বাস্থ্যের প্যারামেডিকরদের

6


নাজমূল হাসান, গবি প্রতিনিধি: বেসরকারী প্রতিষ্ঠান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্যারামেডিকরা সর্বশেষ তিন মাস যাবত বেতন পাননি। চলমান নাজুক পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন বেতন না পাওয়ায় শোচনীয়ভাবে দিনাতিপাত করছেন তাঁরা।
মঙ্গলবার (৩০ জুন) তাদের সাথে কথা বলে এসব অভিযোগের বিষয়ে জানা যায়। প্যারামেডিকরা জানান, বাংলা মাস অনুযায়ী তাদের বেতন হয়। সর্বশেষ ফাল্গুন মাসের পর তাঁরা আর বেতন পাননি। অর্থাৎ চৈত্র, বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ মাসের বেতন বাকি আছে এবং ঈদের আগে আষাঢ় মাসও শেষ হয়ে যাবে।
তাদের অভিযোগ, আমাদের মতো কর্মীরা তো এ বিষয়ে উর্ধ্বতনদের সাথে কথাই বলতে পারিনা। দেখা যায়, প্রতিবছরই দুই তিন মাসের বেতন বাকি থাকে। আমাদের সাব-সেন্টারগুলোতে যারা ইনচার্জ আছেন, তাঁরা মিটিংয়ে চাইলে এসব বিষয়ে বলতে পারেন। জানা যায়, দেশের প্রায় অর্ধ-শতাধিক সাবসেন্টারে ৮৫০ জন প্যারামেডিক সেবা প্রদান করছেন।
অভিযোগের বিষয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সিনিয়র পরিচালক (গ্রামীণ স্বাস্থ্য) ডা: একেএম রেজা বলেন, ‘দেশের চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে আয়ের পরিমাণ ৩০ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। তাই কয়েকমাস তাদের বেতন দেয়া সম্ভব হয়নি। আমরা নিজেরাও বেতন নিইনি।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা কোনো কর্মীকে ছাটাই করিনি বা বেতনও কমাইনি। সাময়িক এই অসুবিধার বিষয়ে কর্মীদের দেখভাল করার জন্য যে কাউন্সিল আছে, তাদের সাথে কথা বলেছি। আমরা আগামী মাসের ১০-১৫ তারিখের মাঝে তাদের দুই মাসের বেতন দিতে পারবো বলে আশা করছি।’
প্রসঙ্গত, চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে বেতন ভাতা নিয়ে নানা সমস্যা তুলে ধরে কর্মবিরতি পালন করে গণস্বাস্থ্য মেডিকেলের শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা। আন্দোলনের মুখে কর্তৃপক্ষ চিকিৎসকদের নিয়মিত বেতন ভাতা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে তাঁরা পুনরায় কাজে যোগদান করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here